বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৯:৩৯:৫৬
সংবাদ শিরোনাম
 
ঈদের আনন্দ নেই আড়ানী মহিলা কলেজের শিক্ষকদের
Online Desk | প্রকাশ: ০৪:৩৫, শনিবার, ২ জুলাই ২০১৬

বাঘা প্রতিনিধি:
আর কয়েকদিন পর ঈদ-উল-ফিতর। ঈদের সেই আনন্দের জোয়ারে ভাসছে গোটা দেশ। কিন্তু রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী আলহাজ্ব এরশাদ আলী মহিলা ডিগ্রী কলেজের ১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মাঝে কোন ঈদের আনন্দ নেই।


কলেজ সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। ১৯৯৯ সালে এই কলেজটি উচ্চ মাধ্যমিক শাখা এমপিও ভূক্ত হয়। ডিগ্রী শাখায় ১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারী ২০০৩ সালে নিয়োগ দেয়া হয়। প্রায় ১৩ বছর ধরে তাঁরা কোন বেতন পাচ্ছেন না।


২০০৩ সালে থেকে কর্মরত অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক শবনাজ শিরিন সিল্কসিটি নিউজকে বলেন, বাড়ি অনেক দূরে বেতন নেই তবুও নিয়মিত কলেজ করতে হয়। কিন্তু এতগুলো বছর হয়ে গেলেও কোনো বেতন পাইনি। ফলে খুব সমস্যার মধ্যে আছি। চাকুরি বয়সে ১৩টি ঈদ পার করছি। বেতন ছাড়া ছেলে-মেয়েদের নিয়ে কিভাবে দিন যাপন করছি তা কেবল আমিই জানি।


ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক আজিজুল হক মিঠু বলেন, ১৩ বছর ধরে চাকরি করছি, কিন্তু বেতন পাই না। এতে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছি। রাষ্ট্রবিঞ্জান বিভাগের প্রভাষক তোফাজ্জল হোসেন একই কথা বলেন।


অধ্যক্ষ শাহাবাজ আলী বলেন, সরকারিভাবে এমপিওভূক্ত বন্ধ রাখা হয়েছে। ছাড় পেলে ডিগ্রী শাখাও এমপিও হবে। এছাড়া ডিগ্রী শাখাকে এমপিওভুক্ত করার ব্যাপারে চেষ্টা করছি।


কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি শহীদুজ্জামান শহীদ বলেন, ডিগ্রী শাখা এমপিওভূক্তির বিষয়ে বাঘা-চারঘাট আসনের সাংসদ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি’র দৃষ্টিতে আছে। সরকার এমপিও ছাড় দিলে এই কলেজ এমপিওভূক্ত হবে।


উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী আবদুল মোকিম সিল্কসিটি নিউজকে বলেন, আমার জানা মতে কলেজটি সকল শর্ত অনেক আগেই পূরণ করেছে। সরকারিভাবে ব্যবস্থা নিলে এই কলেজ এমপিও হবে। তখন আর এই ১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারীর কষ্ট থাকবে না।  
স/শ

 

পাঠকের মন্তব্য ( ০ )
Login